শেষ ব্লগ গুলি

CV লেখার সঠিক নিয়ম। কিভাবে নিজের সিভি-CV টি লিখবেন জেনে নিন ।lovemystudy.com

CV লেখার সঠিক নিয়ম সমূহ বর্ণনা

সিভি-CV লেখার সকল নিয়ম, কিভাবে সিভি লিখবেন বা কিভাবে সিভি তৈরি করবেন বা সিভি লেখার সকল পদ্ধতি জানতে এই ব্লগটি পড়তে পারেন। অনেকে প্রশ্ন করে থাকেন সিভি লেখার নিয়ম সম্পর্কে বা ১টি ভালো সিভি কিভাবে লিখবো এ ধরনের অনেক প্রশ্ন সিভি নিয়ে করে থাকেন। তাই এই পোস্ট টি তাদের জন্য কিভাবে সিভি লিখবেন বা নিজের সিভি টি তৈরি করবেন। তার সকল নিয়ম জানতে এই পোস্ট টি পড়ুন। আর নিজেই তৈরি ক্রুন নিজের সিভি টি। [চাকরির আবেদন করার সময় ইমেইলে CV সিভি পাঠানোর ৭টি নিয়ম|]

১। সিভি CV কত পেজের হবে?

তাহলে যেনে নেওয়া যাক সিভি CV লেখার নিয়ম সমূহ। সিভি CV লেখার নিয়ম ১ম । সব চাইতে কমন একটি প্রশ্ন সবার সিভি লেখার ক্ষেত্রে সিভি কত পেজের হবে। যদি আপনি প্রথম বার সিভি তৈরি করে থাকেন তাহলে আপনি ১ পেজ বা ২ পেজের সিভি তৈরি করবেন। তবে সিভি তৈরি করার ক্ষেত্রে বেশীরভাগ মানুষের চয়েস থাকে ২ পেজের সিভি CV তৈরির ক্ষেত্রে। আর যদি আপনি হাই এডুকেটেড পার্সন হোন এবং আপনি যদি অন্যান্য বিষয় পারদর্শী হোন বা সিভি তে লেখার জন্য আপনার অনেক কিছু থাকে তাহলে ৩ পেজের সিভি তৈরি করতে পারেন। এছাড়া ও যদি আপনার জব এক্সপেরিয়েন্স ৫ বছর বা তার বেশি হয় তাহলে ৩ পেজের সিভি তৈরি করতে পারেন। এর পর যখন আপনার ১০ থেকে ১৫ বছরের এক্সপেরিয়েন্স হয়ে যাবে তখন ৪ পেজের সিভি তৈরি করবেন এভাবে প্রতি ১০ বছর পর পর ১ পেজ করে সিভি তে পেজ সংযুক্ত করবেন।

২। সিভি (CV) ফ্রন্ট কেমন হবে?

সিভি CV লেখার নিয়ম ২য়। সিভি লেখার ক্ষেত্রে অবশ্যই সিভি ফ্রন্ট সব সময় স্ট্যান্ডার্ড করে নিবেন মানে হচ্ছে যে ফ্রন্ট টি যে কেউ দেখলে সহজে একসেপ্ট করে নিবে ঠিক সেরুকুম ফ্রন্ট দিবেন। আপনি নিজের মত করে ভাবুন না আপনাকে যদি কেউ একটি সিভি বা অন্য কোনো চিঠি বা কোনো একটি সিভি পেজ দেয় দেখার জন্য আপনি তা দেখে সর্বপ্রথম কি ভাববেন। দেখবেন সিভি ফ্রন্ট টি কেমন আপনি না দেখলেও আপনার চোখের সামনে সবার আগে সিভি ফ্রন্ট টি আসবে যদি সিভি ফ্রন্ট টি ইটালিক বোল্ড বা অন্য কোনো ফ্রন্ট এ দেয় তখন আপনার কাছে কেমন লাগবে। তাই সিভি তে যে ফ্রন্ট টি দেন না কেনো স্ট্যান্ডার্ড যেনো হয় তা খেয়াল রাখবেন। তবে বেশির ভাগ ক্ষেত্রে টাইমস নিউ রোমান এ ফ্রন্ট টি ব্যবহার হয়ে থাকে সিভি এর ক্ষেত্রে।

৩। সিভি CV এলাইনমেন্ট কেমন হবে?

সিভি CV লেখার নিয়ম ৩য়। অনেকে সিভি লেখার সময় একটু ডিজাইন করার জন্য সিভি কে পেজের মধ্যেখানে থেকে বা সিভি সেন্টার থেকে লেখা সুরু করে। এটা কখনো করবেন না সিভি লেখার সময় সব সময় সিভি এলাইনমেন্ট যেনো লেফট বা বাম পাস থেকে সুরু হয় সে দিকে খেয়াল রাখবেন। এটা সিভির ক্ষেত্রে অনেক টাই গুরুত্বপূর্ণ

৪। সিভি CV ফটো কেমন হবে?

সিভি CV লেখার 4র্থ নিয়ম । সিভি লেখার ক্ষেত্রে অনেকে দেখা যায় সিভি তে ফটো দেওয়ার ক্ষেত্রে একটি সেল্পি দিয়ে দেয় বা অনেক আগের পুরোনো যে ফটো গুলো থাকে সে গুলো দিয়ে দেয়। একটি সিভি তে যে জিনিস গুলো অন্যতম তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে ফটো। সিভি তে সব সময় আপডেট ফটো ব্যবহার করবেন এবং সুন্দর মার্জিত ও স্মার্ট ফটো ব্যবহার করবেন সিভিতে এবং ফটো ব্যাকগ্রাউন্ড যেনো এক কালার থাকে তা ও লক্ষ রাখবেন। কোনো ভাবে পুরোনো ফটো ও সেল্পি তুলে দিবেন না আর অবশ্যই পাসপোর্ট সাইজ ফটো ব্যবহার করবেন মনে রাখবেন সিভি লেখার ক্ষেত্রে এটি অন্যতম একটি গুরত্ত পূর্ণ বিষয়। এতে আপনার সিভি স্মার্ট দেখা যাবে।

৫। সিভি (CV) কন্টাক্ট ইনফরমেশন?

সিভি CV লেখার ৫ম নিয়ম । সিভি লেখার সময় অবশ্যই যেন আপনার কন্টাক্ট ইনফরমেশন ১০০% সঠিক ও এক্টিভ হয় সে দিখে লক্ষ রাখবেন। অনেকে সিভি কন্টাক্ট ইনফরমেশন এ ভুল নাম্বার দিয়ে থাকে এটা কখনো করবেন না। এবং চেষ্টা করবেন সিভিতে ২ টি নাম্বার দেওয়ার যাতে করে সিভিতে দেওয়া একটি নাম্বার বন্ধ থাকলে ও যেন অন্য নাম্বারে আপনার সাথে যোগাযোগ করা যায়। এ ছাড়াও সিভি লেখার ক্ষেত্রে খেয়াল রাখবেন ইমেইল আইডি দেওয়ার সময় কোন ভাবে ফেক ইমেইল দিবেন না এখানে সিভিতে ফেক মেইল বলতে বুঝানো হচ্ছে ধরেন আপনার নাম মোঃ রফিক আর আপনার ইমেইল হচ্ছে অবুজ বালক এমন ইমেইল হচ্ছে ফেক মনে রাখবেন সিভিতে ইমেইলে যেনো আপনার নাম এ থাকে তবে নামের শেষে নাম্বার থাকলে সমস্যা নেই। সিভি লেখার সময় অবশ্যই এ বিষয় মনে রাখবেন।

৬। সিভি (CV) ফরম্যাট?

সিভি CV লেখার 6ষ্ঠ নিয়ম । সিভি লেখার সময় একটি কমন বিষয় হলো সিভি ফরম্যাট টি কেমন হবে বা সিভি ফরম্যাট কোথায় পাবো। যদি আপনি সিভি ফরম্যাট খুজে না পান তাহলে সিভি পেতে এখানে ক্লিক করুন আর আমাদের ফ্রি সিভি ফরম্যাট গুলো ব্যবহার করুন। এ ছাড়াও সিভির জন্য গুগলে সার্চ করলে অনেক সিভি ফরম্যাট পেয়ে যাবেন আবার চাইলে সিভি ফরম্যাট নিজের মতো করে বানিয়ে নিতে পারবেন এমন হাজারো ওয়েবসাইট আছে যেমন এ সাইট গুলো দেখতে পারেন। আবার অনেকে বলে থাকে সিভি ফরম্যাট এ কি লিখবো। আমি বলবো যাই লিখেন না কেন আপনার সিভি টি সুন্দর ও মার্জিত ভাবে সাজিয়ে লিখবেন।

৭। সিভি (CV)-লাস্ট ইন ফাস্ট আউট?

সিভি CV লেখার নিয়ম ৭ম। সিভি লেখার ক্ষেত্রে সব চাইতে বেশি যে ভুলটি করে থাকি আমরা তা হলো লাস্ট ইন ফাস্ট আউট। অর্থাৎ সিভিতে লাস্ট ইন ফাস্ট আউট বলতে বুঝানো হচ্ছে। আমরা সিভি লেখার ক্ষেত্রে এডুকেশন ও এক্সপেরিয়েন্স যখন লিখি তখন আগের টা আগে লিখি পরের টা পরে লিখি যেমন। আপনি আগে এস এস সি দিয়েছেন এরপর ইন্টারমিডিয়েট দিয়েছেন এরপর ব্যাচেলর দিয়েছেন। সিভি তে যখন এডুকেশনাল কোয়ালিফিকেশন দিচ্ছেন তখন সবার উপরে এস এস সি এর পর ইন্টারমিডিয়েট এভাবে লিখেছেন। এটা করবেন না একটা কথা আছে সিভিতে লাস্ট ইন ফাস্ট আউট। আপনি যদি ব্যাচেলর পর্যন্ত করে থাকেন বা তার বেশি যাই করে থাকেন সিভিতে সর্বশেষ এডুকেশনাল কোয়ালিফিকেশন আগে দিবেন। এভাবে এস এস সি সবার শেষে দিবেন আর এটাকেই বলে সিভির ক্ষেত্রে লাস্ট ইন ফাস্ট আউট। সিভি তে এক্সপেরিয়েন্স লেখার ক্ষেত্রে ও এভাবে লিখবেন।

৮। সিভি (CV) স্মার্ট ভাবে বিশ্লেষণ?

সিভি CV লেখার নিয়ম ৮ম। CV লেখার ক্ষেত্রে আমরা একটা অবহেলা করে থাকি যেমন যখন আমরা হটাঠ করে কোনো একটি সার্কুলার পাই আর আমার কাছে সিভি থাকেনা। তখন আমরা কি করি তাড়াহুড়ো করে একটি সিভি লিখি বা সিভি তৈরি করে থাকি কিন্তু তখন সিভি এর সকল বিষয় বস্তু সুন্দর ভাবে বিশ্লেষণ করা থাকেনা চিন্তা করি কোন রুকুম হলেই হলো আগে এই সিভি দিয়ে আবেদন করে নি। এটা কখনো করবেন না চাকরিদাতা আপনার সিভি দেখলে বুঝতে পারবে আপনি সিভি টি কিভাবে লিখেছেন বা সিভি কোয়ালিটি কেমন তারা আপনার সিভি দেখে আপনাকে রিজেক্ট করে দিবে। তাই সিভি লেখার সময় অবশ্যই যথেষ্ট সময় নিয়ে লিখবেন যেন সিভি তে সকল বিষয় বস্তু সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করা থাকে। সিভিটি যেন এলো মেলো ভাবে না হয় সিভির প্রথম পেজের ট্রপিক যেনো সিভির ২য় পেজে না যায় এসব বিষয় ভালো ভাবে লক্ষ রাখবেন।

৯। সিভি, আমি এই কাজ অনেক ভালো পারি?

সিভি CV লেখার ৯ম নিয়ম। অনেকেই সিভি লেখার সময় ক্যারিয়ার অবজেক্টিভ এ লিখে থাকে আমি এ কাজ টি ভালো পারি ঐ কাজটি আমি ভালো পারবো। আমি যথেষ্ট হার্ড ওয়ার্ক করতে পারি আমি অনেক পরিশ্রমী একটা ছেলে এসব আরো অনেক কিছু। সিভি তে ভুলে ও এমন কিছু লিখবেন না এসব লিখলে সুরু থেকে চাকরিদাতা আপনার প্রতি অসন্তুষ্ট থাকবে। সিভি তে এসব না লিখে লিখুন আপনি কি করতে পারেন কিভাবে করতে পারবেন আপনার টার্গেট কি। কিভাবে আপনি আপনার দায়িত্ব পালন করতে পারবেন এ বিষয়টি সুন্দর ভাবে বিশ্লেষণ করুন সিভি তে।

১০। সিভি (CV)+পজিশন ইকুয়েল জব?

সিভি CV লেখার ১০ম নিয়ম। আপনি ভার্সিটি থেকে পাশ করে বের হয়ে একটি সিভি বানিয়ে পেললেন আর তখন থেকে যত ধরণের সার্কুলার পাচ্ছেন সব যায়গায় একই সিভি দিয়ে আবেদন করা সুরু করে দিছেন কিন্তু কেউ আপনাকে ভাইবা দেওয়ার জন্য ঢাকতেছেনা। বলুন তো ভুল টা কার কেন আপনাকে ডাকলোনা। অবশ্যই ভুল টি আপনার তার কারন আপনি সিভি টি যে ভাবে বানিয়েছেন তা সকল জব, সকল পজিশন ও সকল কোম্পানির জন্য পারফেক্ট নয়। আপনি যে পজিশনে আবেদন করবেন ঠিক সে পজিশনের জন্য একটি সিভি বানাবেন। আপনি যদি ভিন্ন ভিন্ন কোম্পানিতে আবেদন করে থাকেন তাহলে ভিন্ন ভাবে সিভি তৈরি করুন। তবে এ ক্ষেত্রে ভাবভেন না আমি আপনাকে হাজার হাজার সিভি বানাতে বলতেছি। আপনি যে ডিপার্টমেন্ট এর স্টুডেন্ট তা রিলেটেড যে জব চাকুরি করবেন তার জন্য ভিন্ন কয়েকটি সিভি বানান বা ভিন্ন ফরম্যটে ২-৩ টি সিভি বানিয়ে রাখুন আর সময় অনুযায়ী সে সকল সিভি আপডেট করে নিবেন।

১১। সিভি CV কন্টাক্ট রেফারেন্স?

সিভি CV লেখার ১১তম নিয়ম। আপনি আপনার সিভি তে রেফারেন্স দিয়েছেন যে কোনো একজন কে একদিন হঠাট করে আপনার ভাইবা বোর্ড থেকে চাকরিদাতা আপনার সিভির রেফারেন্স কে কল করলো আপনার সম্পর্কে জানার জন্য কিন্তু আপনার রেফারেন্স আপনাকে চিনলোনা বা সে আপনার সম্পর্কে ভালো ভাবে জানেনা। তখন কি চাকরিদাতা বিষয়টি ভালো ভাবে নিবে আপনি চিন্তা করুন। তাই যাকে আপনার সিভি তে রেফারেন্স দিবেন অবশ্যই তার সাথে আগে থেকে যোগাযোগ করে নিবেন তার সাথে বিষয়টি শেয়ার করে অনুমতি নিয়ে তাকে আপনার সিভি তে রেফারেন্স দিবেন। যাতে করে কখনো কেউ সিভি দেখে আপনার বিষয় জানতে চাইলে তিনি যেন ভালো ভাবে বলতে পারেন আপনার কথা। তাই সিভি তে রেফারেন্স দেওয়ার সময় খেয়াল রাখবেন সিভি রেফারেন্স যেন আপনাকে ভালো ভাবে চিনে।

১২। সিভি CV ক্যারিয়ার অবজেক্টিভ?

সিভি CV লেখার ১২তম নিয়ম। আমাদের মাঝে অনেকে সিভি ক্যারিয়ার অবজেক্টিভ লিখতে গিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়ে যায় কি লিখবে। আবার অনেকে সিভি ক্যারিয়ার অবজেক্টিভ এ তার কোনো একটি কাজের উদাহরণ দিয়ে দেয়। আপনি জানেন আপনার সিভি তে সব চাইতে কোন বিষয় টি বেশি গুরুত্বপূর্ণ। জি সিভি তে ক্যারিয়ার অবজেক্টিভ হচ্ছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। একজন চাকরিদাতা আপনার সিভির ক্যরিয়ার অবজেক্টিভ দেখে বলে দিতে পারবে আপনি কি পজিশনের জন্য আবেদন করতেছেন। মনে রাখবেন সিভি তে ক্যরিয়ার অবজেক্টিভ লেখার ক্ষেত্রে সুন্দর সহজ ও খুব সিম্পল ভাবে ১টি সেন্টেন্সের মধ্যে আপনার ক্যারিয়ার রিলেটেড বা আপনি আপনার ক্যরিয়ারে কি করতে চান বা কি ধরনের চাকুরি করতে চান তার সুন্দর একটি বর্ণনা দিবেন। তা যেনো অবশ্যই সংক্ষিপ্ত আকারে হয়। এবং স্মার্টলি হয় এটা ও খেয়াল রাখবেন অযথা বাড়তি বিষয় লিখবেন না। গুরত্ত দিয়ে সিভি ক্যারিয়ার অবজেক্টিভ লিখবেন। সিভি ক্যারিয়ার অবজেক্টিভ অনেকটাই গুরুত্বপূর্ণ। [যে সকল কাজগুলি আপনার ক্যারিয়ারকে বাধাগ্রস্ত করে। lovemystudy.com ]

১৩। সিভি CV-নিজ তথ্য?

সিভি CV লেখার ১৩তম নিয়ম। সিভি তে নিজ তথ্য বা পারসোনাল ইনফরমেশন। অনেক সময় দেখা যায় কিছু সিভি তে প্রথম পেজে বা সবার আগে পারসোনাল ইনফরমেশন গুলো দেওয়া থাকে। মনে রাখবেন সিভি লেখার ক্ষেত্রে সব সময় পারসোনাল ইনফরমেশন গুল সিভির শেষ পেজে দেওয়ার। যদি আপনার সিভি ৪ পেজের বা ৫ পেজের সিভি হয় তাহলে ১ পেজ আগে দিতে পারেন তবে যদি ২ পেজের বা ৩ পেজের সিভি হয় অবশ্যই সিভি শেষ পেজে পারসোনাল ইনফরমেশন গুলি লিখবেন। [৪ পেজের ১০0+ CV ফরম্যাট ফ্রিতে ডাউনলোড করুন এখান থেকে। lovemystudy.com ]

১৪। সিভি CV আপডেট?

সিভি CV লেখার ১৪তম নিয়ম। সিভি তে আমাদের আরেকটি বড়ো ভুল তা হলো আমরা সিভি আপডেট করিনা কোনোভাবে যদি একটি সিভি বানাতে পারি তাহলে ভুলে যাই সিভি আপডেটের কথা। এটা করবেন না সব সময় আপনার সিভি টি আপডেট করুন। অনেকে ভাব্বেন প্রতিবার আবেদনের সময় আপডেট করবেন কিনা না। এমন টা নয় যদি আপনার সিভি তে নতুন ভাবে কিছু যুক্ত করার থাকে তাহলে অবশ্যই আপডেট করবেন তার জন্য নির্দিষ্ট কোন সময় নেই। তবে যদি সিভি তে কিছু যুক্ত করার না থাকে তাহলে ও চেষ্টা করবেন ৬ মাস পর পর যেনো CV আপডেট করা যায়। [বেকারত্ব নিরসনে আমাদের করণীয় কি?]

১৫। সিভি CV সাথে LinkedIn?

সিভি CV লেখার ১৫তম নিয়ম। সব সময় যেমন সিভি টি আপডেট করবেন ঠিক তেমনি আপনার LinkedIn প্রোফাইল টি ও আপডেট করে নিবেন। LinkedIn প্রোফাইল নিয়ে আমাদের কিছু ব্লগ রয়েছে সেগুলো দেখে আসতে পারেন। মনে রাখবেন যদি আপনার ভালো একটি LinkedIn প্রোফাইল থাকে অনেক সময় আপনার সিভি এর চেয়ে সে প্রোফাইল টি বেশি কাজে আসবে। [৫০+ CV-সিভি ফরম্যাট ফ্রিতে ডাউনলোড করুন]

আমরা ও সিভি বানিয়ে থাকি আপনার পছন্দের সিভি টি বানিয়ে নিন আমাদের কাছ থেকে। আমরা আপনাকে আপনার পছন্দের সিভি টি বানিয়ে দিব অল্প টাকার মধে আবার চাইলে আপনার সিভি টি কিছুটা পরিবর্তন ও করে নিতে পারেন। আমরা সিভি নিয়ে সকল কাজ করে থাকি এবং ধ্রুত সময় সিভি ডেলিভারি দিয়ে থাকি। এছাড়া ও কভার লেটার ও তৈরি করে থাকি আপনার প্রয়োজনে সিভি ও কভার লেটার আমাদের কাছ থেকে বানিয়ে নিতে পারেন তাছাড়া সিভি ও কভার লেটার এর পাশাপাশি লিঙ্কডিন প্রোফাইল ও বিডিজবস একাউন্ট ও সাজিয়ে থাকি তাই চাইলে আমাদের থেকে সহজে সিভি সহ সকল সার্ভিস সল্প সময়ে ও অল্প টাকায় করে নিতে পারেন আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে আমাদের ওয়েবসাইট যোগাযোগ পেজ থেকে করতে পারেন বা ইমেইল করতে পারেন আমাদের কাছে ইমেইল করার ঠিকানাঃ lovemystudy40@gmail.com number: +8801403169557 [২ পেজের ১০0+ সিভি ফরম্যাট ফ্রিতে ডাউনলোড করে নিন। ]
[CV নিয়ে সকল প্রশ্নের উত্তর একসাথে জানতে এখানে ক্লিক করুন। ]

কোন মন্তব্য নেই

ধন্যবাদ আপনাকে কমেন্ট করার জন্য শিগ্রই আপনার কমেন্ট এর উত্তর জানিয়ে দেওয়া হবে।