শেষ ব্লগ গুলি

স্মৃতি শক্তি ধরে রাখার সহজ ১০টি টিপস।বা মনে রাখার সহজ পদ্ধতি।lovemystudy.com

মনে রাখার সহজ ১০টি উপায়।

স্মৃতি শক্তি ধরে রাখার সহজ টিপস

স্মৃতি শক্তি কমে গেছে কি করবেন কিভাবে মনে রাখবেন কিভাবে স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধি করবেন বা মনে রাখার উপায় কি সকল প্রশ্নের উত্তর এখানে।

আমাদের যখন স্মৃতি শক্তি হ্রাস পায় তখন যে কোনো বিষয় আমরা সহজে ভুলে যাই। যা আমাদের জন্য অনেক টাই ক্ষতিকর যার কারণে বাস্তব জীবনে আমরা অনেক বিপদের সম্মুখীন হই। তাই আমরা চেস্টা করি কিভাবে আমাদের স্মৃতি শক্তি আবার পিরিয়ে আনা যায় এ জন্য আমরা মাঝে মাঝে গুগলে সার্চ করি কিভাবে মনে রাখা যায়। আজকের ব্লগ টি পড়লে বুঝতে পারবেন এবং মনে রাখার সহজ কিছু টিপস পাবেন যা আপনার জন্য কিছুটা হলেও উপকারে আসবে।

স্মৃতি শক্তি ধরে রাখার সহজ ১০টি টিপস।

১। আপনার খাওয়ার দাওয়ার।

মনে রাখার ১ম টেকনিক। স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধির অন্যতম একটি উপায়। আপনি কি খাচ্ছেন তার দিকে নজর দিতে হবে। প্রচুর ভিটামিন যুক্ত খাওয়ার খেতে হবে। ফ্যাট যুক্ত খাওয়ার কম খাবেন এবং প্রয়োজনের বেশি খাবেন না এচাড়া প্রতিদিন টাইম মেনে খাবেন সকালের খাবার দুপুর যেনো না হয়। এটা করার ফলে মনে রাখার বা স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধি পাওয়া সুরু হবে।

২। পর্যাপ্ত ঘুম।

মনে রাখার ২য় টেকনিক। যদি আপনার স্মৃতি শক্তি ধরে রাখতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই পর্যাপ্ত পরিমান ঘুমাতে হবে এবং প্রতিদিন সঠীক টাইম মেনে ঘুমাতে হবে রাত্রে তারাতারি ঘুমাতে হবে এবং সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠতে হবে সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠলে স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধি পায়। তাই তারাতারি ঘুমান সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠেন সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠলে মনে রাখার প্রবণতা বা স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধি পাবে।

৩। ব্যায়াম।

মনে রাখার ৩য় টেকনিক।যদি স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধি করতে ছান ব্যায়াম করুন। ব্যায়াম করার ফলে আপনার অনেক বেশি উন্নতি হবে স্মৃতি শক্তির জন্য। যদি আপনি প্রতিদিন অল্প অল্প করে ও ব্যায়াম করেন তাহলে আপনার স্মৃতি শক্তি আগের ছেয়ে বেড়ে যাবে। ব্যায়াম করার ফলে আপনার শরির মন যেমন ভালো থাকবে তেমনি আপনার স্মৃতি শক্তি ও অনেক টাই বেড়ে যাবে। তাই সময় নিইয়ে দিনে অন্তত ৩০ মিনিট ব্যায়াম করুন। স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধি করুন।

৪। ধূমপান ও মদ্যপান ছাড়ুন।

মনে রাখার ৪র্থ টেকনিক। ভুলে যাওয়ার অন্যতম একটি কারণ। ধূমপান ও মদ্যপান করার ফলে আপনার স্বাস্থ্য যুকি যেমন রয়েছে ঠিক তেমনি আপনার স্মৃতি শক্তি হ্রাস পেয়ে থাকে তাই আজি ধুমপান মদ্যপান ছাড়ুন সুস্থ থাকুন স্মৃতি শক্তি ধরে রাখুন এবং স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধি করুন।

৫। সামাজিক হোন।

মনে রাখার ৫ম টেকনিক। একা না থেকে সামাজিক হোন সমাজের সকল প্রকার মানুষের সাথে মিশুন। মাঝে মাঝে শিশুদের সাথে ও মিশুন। সবার সাথে মিশুন সবাইকে বুঝতে শিখুন তাদের কথা শুনুন। সময় পেলে মাঝে মাঝে খেলতে জান খেলাধুলা শরির সাস্থ ভালো রাখার জন্য অনেক বেশি ভূমিকা রাখে এছাড়াও আপনার স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধিতে ও মনে রাখতে ভূমিকা রাখে। তাই সামাজিক হোন সবার সাথে মিশুন বিশেষ করে শিশুদের সাথে।

৬। মানসিক চাপ কমান।

মনে রাখার ৬ষ্ঠ টেকনিক। মানসিক চাপ কমান আপনার স্মৃতি শক্তি হ্রাস করার জন্য মানসিক চাপ ই যথেষ্ট। তাই যদি মানসিক চাপে থাকুন তা কমিয়ে আনুন যদি তা না করতে পারেন কাছের মানুষ দের কাছে শেয়ার করুন কমে যাবে। অযথা বাড়তি বিষয় নিয়ে চিন্তা করবেন না এতে আপনার মানসিক চাপ বাড়ে আর এতে আপনার স্মৃতি শক্তি হ্রাস পায়। তাই মানসিক চাপ কমান স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধি করুন সকল বিষয় মনে রাখুন।

৭। ধ্যান বা মেডিটেশন।

মনে রাখার ৭ম টেকনিক। ব্যায়ামের পরিবর্তে আপনি মেডিটেশন ও করতে পারেন এর ফলেও আপনার শরির চর্চা হয়ে যাবে। আর স্মৃতি শক্তি বাড়াতে ধ্যান বা মেডিটেশন ও অনেক ভালো ভূমিকা রাখে তাই সময় নিয়ে দিনে ১ ঘন্টা ধ্যান বা মেডিটেশন করুন। তবে ব্যায়ামের ছেয়ে ধ্যানে সময় একটু বেশি লাগে।

৮। একসাথে কাজ না করুন।

মনে রাখার ৮ম টেকনিক। অনেক গুলো কাজ একসাথে করতে যাবেন না তাতে আপনার কাজ তো শেষ হবে তবে আপনার কাজ করার ইচ্ছা শক্তি কমে যাবে। প্রায় সময় ভুলে যাবেন। আপনি কিছুদিন পর মানসিক ভাবে অসুস্থ হয়ে পড়বেন সুদু তাই নয় একসাথে অনেক কাজ করার ফলে ধীরে ধীরে আপনার স্মৃতি শক্তি ও হ্রাস পাবে। তাই সকল কাজ একসাথে না করে আস্তে আস্তে করুন এবং বড়ো কাজ ঘুলোকে ছোটো করে করুন দেখবেন কাজ করার আগ্রহ বাড়বে এবং আপনার স্মৃতি শক্তি ও ঠীক থাকবে।

৯। লিখে রাখুন।

মনে রাখার ৯ম টেকনিক। আপনার ভুলে যাওয়ার রোগ আছে আপনি যে কোনো কিছু সহজে ভুলে যাচ্ছেন। তাহলে একটি কাজ করতে পারেন। যখন যা মনে পড়ে সাথে সাথে একটি নোটে লিখে নিন মানে আপনার মোবাইলে একটি নোট রাখুন বা সাথে একটি ডাইরি রাখুন যেখানে আপনার দিনের রুটিন ঘুলো সুন্দর করে লিখে রাখবেন। যদি কোনো কিছু মনে হওয়ার সাথে সাথে লিখে রাখেন বা যে কোনো কিছু যদি লিখে রাখেন তাহলে আপনার তা মনে থাখবে খুব সহজে। তাই জরুরি বিষয় ঘুলো লিখে রাখুন সহজে মনে থাকবে।

১০। সুর ও সঙ্গীত।

মনে রাখার ১০ম টেকনিক। একাকিত্ব জীবনের সবচাইতে কাছের জিনিস হচ্ছে সঙ্গীত ও বই পড়া। যখন মন খারাপ থাকবে তখন একটি ভালো সঙ্গীত সুনুন ভালো লাগবে মন ভালো হবে। আর সঙ্গীত এমন একটি জিনিস যা আপনার মস্তিস্ককে জেগে তুলবে আপনাকে প্রাণবন্ত করে তুলবে। আপনার মন যখন ভালো থাকবে আপনি যখন প্রাণবন্ত থাকবেন তখন আপনার স্মৃতি শক্তি ভালো থাকবে তাই কষ্টের দিন ঘুলোতে ভালো কিছু গান সুনুন মন ভালো থাকবে এতে করে আপনার স্মৃতি শক্তি ভালো থাকবে।

একজন সফল বসের বৈশিষ্ট্য সমূহ জেনে নিন।

সব সময় নিজেকে হাসি খুশি রাখার ১১ টি টিপস?

একটি বিষয় না বললেই নয় এ সকল বিষয় আপনাকে সামান্য পরিমান হলেও পরিবর্তন করতে পারবে। তবে যদি আপনার বেশি পরিমাণ ভুলে যাওয়ার রোগ থাকে যদি সব কিছু ভুলে যান তাহলে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

আমাদের লিখা যদি আপনার ভালো লেগে থাকে তাহলে আমাদের ফলো করুন এবং এখানে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আর বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করতে ভুলবেন না। ধন্যবাদ।



স্মৃতি শক্তি কেন হারায় জেনে নিন|
কর্মক্ষেত্রে নিজেকে খুশি রাখার ১০ টি টিপস|

আমাদের কাছে কিছু লিখে পাঠাতে চাইলে ইমেল করে পাঠাতে পারেন আমাদের ইমেইল এর ঠীকানাঃ lovemystudy40@gmail.com এছাড়া ও আমাদের কাছে আপনি লিখা পাঠাতে পারেন এখান থেকে। নিয়মিত আমাদের ব্লগ ঘুলো পেতে আমাদের ওয়েবসাইট এ সাবস্ক্রাইব করুন।

কোন মন্তব্য নেই

ধন্যবাদ আপনাকে কমেন্ট করার জন্য শিগ্রই আপনার কমেন্ট এর উত্তর জানিয়ে দেওয়া হবে।