শেষ ব্লগ গুলি

একজন সফল বসের বৈশিষ্ট্য সমূহ জেনে নিন।

একজন সফল বসের বৈশিষ্ট্য সমূহ

একজন সফল বসের বৈশিষ্ট্য সমূহ।

ভাল বসের গুণাবলি, আপনার বস কেমন ভাল না খারাপ তার গুণাবলি দেখে বুঝে নিন। ভালো বসকে কিভাবে বুঝবেন। আপনার বস কেমন একটি অফিসের একটি ভালো বস মানে পূরও অফিস টাই নিজের ঘড়ের মতোই মনে হয়। তাছাড়া সকল কর্মচারীর কর্মক্ষেত্রে নিজেকে উজার করে কাজ করার প্রভনতা ১০০% অটোমেটিক বেড়ে যায়। এ ছাড়া যদি বস ভালো হয় সবার সাথে ভালো ভাবে মিসতে পারে সহজে বস তার সকল কাজ আদায় করে নিতে পারে তার কর্মীদের থেকে।

সব সময় নিজেকে হাসি খুশি রাখার ১১ টি টিপস?

১। বস তার নিজের ফিল্ডে এক্সপার্ট।

একজন ভাল বসের গুণাবলি একজন বস অবশ্যই তার ফিল্ডে এক্সপার্ট হওয়া উচিৎ যার কারণ বস যদি নিজেই কিছু না জানেন বা তার ঐ ফিল্ড সম্পর্কে তেমন কোনো ভালো আইডিয়া না থাকে তাহলে যেমনি কোম্পানির লস ঠিক তেমনি তার ও লস পাশাপাশি কর্মীদের আরো বেশি ক্ষতির কারণ। বস যদি ফিল্ড এক্সপার্ট না হয় তাহলে কর্মীরা তাকে কখনো মন থেকে সম্মান করবেনা এবং বস ও কর্মীদের কাজ নিয়ে তেমন একটি তদারকি করতে পারবেনা তার কাজ আদায় করে নিতে পারবেনা। কর্মীরা যদি পুরো কাজ না করে ও বস কে বুঝাই দে বস তা নিয়ে পড়ে থাকবে অবশেষে কোম্পানির লস হবে। এবং বস যদি এক্সপার্ট না হন কর্মীদের কাজে কখনো সন্তুষ্টি অর্জন করতে পারবেন না ফলে কর্মীদের কাজের প্রতি অনেহা সৃষ্টি হবে এতে করে কোম্পানি ও কর্মী দুই টারি ক্ষতি হবে তাই আমি বলবো অবশ্যই বস তার ফিল্ডে এক্সপার্ট হতে হবে।

২। বস যে পর্যায়ে আছেন, ঐ পর্যায়ে উঠতে যেনো সবাইকে সহযোগিতা করেন।

একজন ভাল বসের গুণাবলি অবশ্যই ভালো বসের মধ্যে যতো গুলো ঘুণাঘুন আছে তার মধ্যে অন্যতম একটি ঘুণাঘুন হলো বস যে পর্যায় আছে যেনো সে পর্যায় আসতে তার নিকটস্ত কর্মীদের উনি উৎসাহিত করেন। যদি কোনো বস তার নিকটস্ত কর্মীদের কে এইভাবে উৎসাহিত করেন তখন কর্মীদের কাজের প্রতি উৎসাহ আগের থেকে অনেক বেশি বেড়ে যাবে। এবং বস ও নিকটস্ত কর্মীদের মাঝে সম্পর্ক আরো সুন্দর হবে যাতে করে কোম্পানি, বস ও নিকটস্ত কর্মীদের সবারি কর্মক্ষেত্রে অগ্রগতি বৃদ্ধি পাবে তাই বলবো বস এমনি হওয়া উচিত।

৩। সারাক্ষণ নিজের স্বার্থের কথা ভাবে না।

একজন বসের গুণাবলি একজন ভালো বস কখনো একা তার স্বার্থের কথা ভাবেনা সে ভাবে কোম্পানির পাশাপাশি তার নিকটস্ত কর্মীদের কথা ও। কিন্তু দুঃখ্য জনক হলেও সত্য আমাদের মাঝে বেশিরভাগ বস এ কোম্পানির উপরস্ত বসদের কাছে ভালো সাজার জন্য তার নিকটস্ত কর্মীদের সব সময় প্রেশারে রাখে। তারা কর্মীদের কে দিয়ে কাজ করিয়ে যথেষ্ট বেতন ভাতা না দিয়ে মালিক পক্ষের কাছে ভালো সাঁজে এবং তাদের পকেট ভাড়ি করে তারা চিন্তা করে কিভাবে নিজের পকেট ভাড়ি করবে অন্যের পকেট খালি করে। আর কর্মীদের সাথে খারাপ আচরন করে তবে সবাই এমন সামান্য হলেও কিছু বস আছে যারা এখনো কর্মীদের কথা ভাবে কোম্পানির কথা ভাবে নিজের পকেটে কম গেলেও কর্মীদের তাদের ন্যায্য বেতন দিয়ে থাকে।

৪। একজন ভালো বস অবশ্যই একজন মনোযোগী শ্রোতা।

একজন ভালো বস অবশ্যই আপনার সকল কথা মনোযোগ দিয়ে সুনবে তা বিশ্লেষণ করবে এটা অন্যরুকুম গুণাবলি ভাল বসের। এবং কোম্পানির উন্নয়ন মূলক কাজে তার সহকর্মীদের মতামত নিবে। তাছাড়া কর্মীদের সকল অভিযোগ মনোযোগ দিয়ে সুনবে এবং সুন্দর ভাবে সমাধান করবে। তিনি যে কোনো সময় কর্মীদের তধারকি করবেন কর্মীদের অবস্থা জানতে চাইবেন কর্মীদের সকল কথা সুনবেন। একজন ভালো বস অবশ্যই মনোযোগ দিয়ে আপনার কথা সুনবে তা বিশ্লেষণ করবে এবং তা সমাধান করবে।

৫। কর্মীদের উন্নয়ন দেখে বস আনন্দিত হবে এবং মোটিভেট করবে।

ভাল বসের গুণাবলি অবশ্যই একজন ভালো বস কর্মীদের উন্নয়ন দেখে কর্মীদের কে মোটিভেট করবেন যেনো তারা আরো বেশি উন্নতি করে তাহলে তার কাজ করার ক্ষমতা আরো বেড়ে যাবে। তাছাড়া যদি কোনো বস যদি তার নিকটস্ত কর্মীদের প্রোমোশনের জন্য উৎসাহিত করে তখন ঐ কর্মী ঐ অফিসের বেস্ট কর্মী হয়ে উটবে। একজন কর্মীকে ভালো কর্মী হিসেবে গড়ে তোলার ক্ষমতা সুধু একজন ভালো বসের হাতেই থাকে। তাই বলবো যদি আপনার বস ভালো বস হন আপনাকে সকল কাজে সব সময় উৎসাহিত করবে আপনাকে মোটিভেট করবে কখনো হিংসে করবেনা আপনার উন্নতি দেখে।

৬। আপনাকে সম্মান করে এবং সর্বোপরি আপনার ভালো চায়।

একজন বসের গুণাবলি একজন ভালো বস সর্বোপরি আপনাকে সম্মান করবে আপনার মত প্রকাশ কে সম্মান করবে। আপনার সকল কার্যক্রম কে তিনি সম্মান করবেন। এবং আপনাকে সম্মানের পাশা পাশি আপনার ভালো চাইবেন কখনো আপনার ক্ষতি চাইবেন না।ভালো বস রা একটা অফিসের সবার কাছে একজন ভালো অভিবাবক হয়ে থাকেন অভিবাবক যেমন তার পরিবারে সকলের ভালো চান তেমনি বস ও আপনি সহ আপনার অফিসের সবার ভালো চাইবেন এবং আপনাদের যথেষ্ট সম্মান করবেন।

তারপর ও আজকাল আমরা আজ অধিকাংশ বসদের কাছে বন্ধি তারা যেভাবে চায় আমরা সে ভাবে চলতে হয় কর্মক্ষেত্রে আমাদের তেমন কোনো স্বাধীনতা নাই আমরা চাইলে ও কিছু করতে পারিনা। নাই আমাদের মত প্রকাশের কোনো স্বাধীনতা। কেউ কিছু বলতে চাইলে জব চলে যায় এইটা আমাদের বর্তমান সমাজের অবস্থা। তার পর ও কে কি করবে চাইলেতো অনেকে জব চাড়তে পারেনা সকল অত্যাচার মেনেও জব করে যাচ্ছে। এতো কিছুর পড় ও অনেক বস আছেন যারা আমদের যথেষ্ট সম্মান করে থাকেন সালাম জানাই সে সকল বসদের যারা তাদের কর্মীদের সব সময় উৎসাহিত করে তাদের কে সম্মান করে।

আমাদের লেখায় ভুল থাকতে পারে যদি কোনো অংশ আপনার ভালো না লাগে বা ভুল মনে হয় প্লিজ আমাদের কমেন্ট করে জানান আমরা আমাদের ভুল সুদ্রিয়ে নিবো এ চাড়াও যদি আপনারা কিছু লিখে পাটাতে চান পাটাতে পাড়েন আমরা আপনার লিখা আমাদের ওয়েবসাইটে পাবলিশ করে দিবো।

কর্মক্ষেত্রে নিজেকে খুশি রাখার ১০ টি টিপস|

এই ব্লগটি লেখার আইডিয়া পেয়েছি।
সিরাজ উদ্দিন চৌধুরী রুবেল
ফাউন্ডার এন্ড সিইও
এইচ আর পার্সেপশন


বেকারত্ব নিরসনে আমাদের করণীয় কি?

কোন মন্তব্য নেই

ধন্যবাদ আপনাকে কমেন্ট করার জন্য শিগ্রই আপনার কমেন্ট এর উত্তর জানিয়ে দেওয়া হবে।