শেষ ব্লগ গুলি

ফেসবুক আমাদের জীবনে কতটা পরিবর্তন এনেছে।ফেসবুকের উপকারিতা ও অপকারিতা

ফেসবুক ব্যবহারের সুবিধা ও অসুবিধা।

ফেসবুকের কারনে আমাদের জীবনে পরিবর্তন

ফেসবুক কি ?

শুরুতে আসি ফেসবুক কি, আজ কাল যদি কাউকে জিজ্ঞেস করা হয় ফেসবুক কি, যে কেউ খুব সহজে বলে দিবে ফেসবুক কি একদম ই সহজ, মুলত ফেসবুক একটি সামাজিক পাব্লিকালি সোশ্যাল মিডিয়া যেখানে পৃথিবীর যে কোনো অবস্থান থেকে যে কেউ ফেসবুক ব্যবহার করতে পারবে, এবং বন্ধু বাছাই করতে পারবে একে অন্যের সঙ্গে বন্ধুত্ত করতে পারবে।[নিজের মার্কেটিং ব্যবসা কি| নিজের মার্কেটিং ব্যবসা করার কৌশল|]

ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচিত

ফেসবুক ব্যবহারের সুফল আজকাল আমরা দেখি হঠাট করে একটা নিউজ হচ্চে সেখানে কেউ একজন ভাইরাল হয়ে যাচ্ছে আমরা যদি চিন্তা করি ৫-৮ বচর আগে ও কিন্তু এমন ছিলোনা যে কোনো একটি ভালো নিউজ বা হট ট্রপিক জানার জন্য টিভি নিউজের জন্য বসে থাকতাম এখন কিন্তু তা হয়না সাথে সাথে যে কোনো খবর আমরা ফেসবুকে পেয়ে যাই, তেমনি আমরা দেখি ফেসবুকে কিছু মানুষের হাজার হাজার লাখো ফলোয়ার আচ্চা ভাবুন তো যখন ফেসবুক চিলোনা তখন আপনি কতজন সেলিব্রেটি কে জানতেন বা আপনার এলাকার বন্ধু বান্ধব স্কুল, কলেজের বন্ধু ছারা আর কোনো বন্ধু চিলো কি এখন একটি ভালো পিক তুল্লে ফেসবুকে আপলোড দিয়ে দেন আর সেখানে হাজারো মানুষ লাইক কম্মেন্ট করে থাকে আপনি ও করে থাকেন একবার ভাবুন তো ফেসবুকের কারনে আপনার পরিচিতি তা কতো টা বেরে গেছে আরও দেখেন না প্রতিদিন কেও না কেউ হটাঠ করে ফেসবুকে এসে রাতারাতি সেলিব্রেটি হয়ে যাচ্চে তবে আমি বলবোনা এসব সব ভালো দিক কিছু খারাপ দিক ও আছে সেটা ও বলবো।

ফেসবুকের কারনে সামাজিক উন্নতি বা ব্যবহারের সুবিধা।

আজকে একটা জিনিস লক্ষ রাখলে বুঝতে পারবেন ফেসবুক ব্যবহারের সুবিধা টা কি ফেসবুকের কারোনে সমাজের কতটা পরিবরতন হয়েছে আগে আমরা একটা নিউজ পাওয়ার জন্য নিউজ পেপার বা টিভি নিউজ নিয়ে পরে থাকতাম এখন তা করিনা সাথে সাথে ফেসবুকে পেয়ে যাচ্ছি, হারিয়ে যাওয়া বা দিরগদিন কথা বা যোগাযোগ না হওয়া বন্ধু, আত্তিয় দের কথা হটাঠ মনে পরলে ফেসবুকে একটা এস এম এস দিয়ে দিচ্চি নিয়মিত তাদের খবর নেওয়া যাচ্চে, কিছু সময় কিছু কিছু মেমরি মনে পরে যাচ্চে, যত গুলো নতুন ট্রপিক আছে সাথে সাথে পেয়ে যাচ্ছি, এ চারাও সামাজিক আরো অনেক উন্নতি সাধন হচ্ছে ফেসবুকের কারনে তবে এখন ফেসবুক চারা ও অনেক সোশ্যাল মিডিয়া রয়েছে সেগুলো সামাজিক পরিবর্তনের অংশীদার

ফেসবুকে ব্যবসা।

ফেসবুকের উপকারিতার মধ্যে একটি, যদি বলেন ফেসবুকে ব্যবসা কি আমি বলবো ফেসবুক বর্তমানে ব্যবসা করার অন্য তম মাধ্যম বর্তমানে আমাদের দেশের অনেক শিক্ষিত মানুষ ফেসবুকের প্রতি নিরবরশীল তাদের সকাল থেকে সন্ধ্যা হয় ফেসবুকে। ফেসবুকে ব্যবসা করার বেশ কিছু মাধ্যম আছে যেমন

  • ১-পেজ সেল
  • ২-পেযে প্রোডাক্ট সেল
  • ৩-গ্রুপে প্রোডাক্ট সেল
  • ৪-নিজ আইডি থেকে প্রোডাক্ট সেল
  • ৫-পেজ প্রমোট
  • ৬-আড দেখে ইনকাম
  • ৭- ভালো পেজ থাকলে সেখান থেকে ইনকাম

এ চারা ও অসংখ ইনকাম সোর্স রয়েছে যা অন্যদিন বলবো, আজকাল মানুষ অনলাইনে কিনা কাটার প্রতি আগ্রহি বেশি, এই সুযোগ টা কাজে লাগিয়ে বর্তমানে অনেক ব্যবসায়ি তাদের পণ্য ফেসবুকে সেল করে থাকে।[ফেসবুক ব্যবহারে ৭টি সতর্কতা ?]

ফেসবুকের কারনে সামাজিক ক্ষতি।

ফেসবুক ব্যবহারের অসুবিধা বা অপকারিতা ফেসবুক যেমনি আমাদের অনেক উপকারে এসেছে তেমনি অনেকটাই ক্ষতির কারন ও বলা যায়, তাহলে জেনে নি ক্ষতি গুলো কি কি। আগে আমরা বন্ধুরা মিলে গুরতে যাইতাম বিকালে আড্ডা দিতাম, আর এখন মেসেঞ্জার গ্রুপে আড্ডা এস এম এস হয়, আগে আমরা কোনো কিছুতে আত্মীয় বন্দু বান্ধব দের বারি জেতাম আর এখন ফেসবুকে উইশ করি, আগে বন্ধুরা মিলে প্লান করতাম কোথায় টুরে যাওয়া যায় এখন কার টাইম নাই আগে আমি যখন খেলার মাঠে খেলতে যেতাম দেরি করে গেলে খেলতে পারতাম না খেলার মাঠে অনেক খেলোয়ার হয়ে যেতো আর এখন মাজে মাজে মাঠে গিয়ে দেখি এলাকার ছোটো ভাইরা মাঠের এক কোনে বসে কারো সাথে চ্যাটিং এ ব্যস্ত এইতো হলো সামাজিক দুরত্ত।
এচাড়া ও আমাদের আরো বিভিন্ন দিখে ফেসবুক ক্ষতির কারন কিছু অসৎ প্রক্রিতির মানুষ প্রায় সময় দেখা যায় আমার আর আপনার মোবাইলে যত ডাটা আছে তা তারা চুরি করে নিয়ে যায় যা দিয়ে আমি আর আপনাকে ব্লাকমেইল করতে থাকে এচাড়াও কেউ কেউ নাশকতা সৃষ্টি করে ভুয়া নিউজ দিয়ে, আর আজ কাল তো ফেসবুক নিজেই আপনার মোবাইলের ডাটা তাদের কাছে রাখে আপনি অফলাইনে কত গুলো আপস বা কি কি ব্রাউজিং করেন তা সে সেভ করে নে তাই ফেসবুকে আমাদের যেমন টা উপকারে আসছে আবার ঠীক তেমনি কিছু দিকে আমাদের ক্ষতির কারন হয়ে দাঁড়িয়েছে।[৫০ টি CV-সিভি ফরম্যাট ফ্রিতে ডাউনলোড করুন]

কোন মন্তব্য নেই

ধন্যবাদ আপনাকে কমেন্ট করার জন্য শিগ্রই আপনার কমেন্ট এর উত্তর জানিয়ে দেওয়া হবে।